বিশ্ব পাখি দিবস; তারিখ, ইতিহাস,শুভেচ্ছা বার্তা, উক্তি, স্ট্যাটাস, ছবি

বিশ্ব প্রাণী দিবস প্রতিবছর তিনটি পৃথিবী জুড়ে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পালিত হয়। আজ এই নিবন্ধে আমরা বিশ্ব প্রাকৃতিক উৎস সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করতে যাচ্ছি। তাই আপনি যদি বিশ্ব প্রাণী দিবস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে এই নিবন্ধটি আপনার জন্যই।প্রতি বছর মেয়ে অক্টোবর মাসের দ্বিতীয় শনিবার বিশ্ব পাখি দিবস পালিত হয়। এবার এই দিনটি পালিত হবে অক্টোবর মাসে। দিনটি পালন করার মূল উদ্দেশ্য হলো বিশ্বব্যাপী পাখির গুরুত্ব সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করার জন্য। কারণ প্রকৃতি ভারসাম্য রক্ষায় পাখি যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে সেই উপলব্ধি বোধ মানুষের মধ্যে তৈরি করা এই দিবসের মূল উদ্দেশ্য।

বিশ্ব পাখি দিবস কবে?

পাখির আবাসস্থল কে নিরাপদ রাখা ও বাকিদের অবাধ বিচরণে জল সংরক্ষণের উদ্যোগী হওয়ার জন্য বিশ্ব নেতাদের আপনের স্বীকৃতিস্বরূপ 11 ও 12 ই মে কি দিবস পালন করা হয়। এ দিবসের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো বিশ্বপতি পাখির গুরুত্বকে মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া। পাখি প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, এবং এজন্য পাখির চেয়ে প্রকৃতিতে প্রয়োজন আছে সেই উপলব্ধি করতে তৈরি করা।

বিশ্ব পাখি দিবসের ইতিহাস

বর্তমান বিশ্বের ব্যাপকভাবে শিল্প-কলকারখানা বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে পাখিদের আবাসস্থল প্রায় ধ্বংসের মুখে পরিণত হয়েছে। পৃথিবীর ভারসাম্য রক্ষায় পাখি সংরক্ষণ করা একান্ত প্রয়োজন। এ কারণে প্রথম 2006 সালে বিশ্বজুড়ে পাখি সংরক্ষণ সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি করার জন্য পাখি দিবস পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। পরে 2008 সালে বিশ্ব পাখি দিবসের স্লোগান তৈরি করে এটি পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। 2008 সালে পাখি দিবসের স্লোগান ছিল পরিযায়ী পাখি জীব-বৈচিত্র্যের দুত। পরিযায়ী পাখি হলো অতিথি পাখি। অর্থাৎ শীতকালে বাংলাদেশ-ভারতের ভিনদেশী যে পাখি গুলো আগমন ঘটে সেই পাখিগুলোকে অতিথি পাখি বলে। এই পাখিগুলো আমাদের দেশে একটি নির্দিষ্ট সময়ে এসে ডিম পেড়ে বাচ্চা ফোটায়। এবং নির্দিষ্ট কিছু সময় পর পাখিগুলো আবার ফিরে যায়। এই অল্প সময়ের জন্য পাখিগুলো আমাদের দেশে অতিথি হয়ে আসে। তাই আমাদের সকলের উচিত এই অতিথিদের অবাধ বিচরণের সুযোগ করে দেওয়া। এর জন্য পাখি দিবস পালন করা অত্যন্ত প্রয়োজন। পাখি দিবস ব্যাপকভাবে পালিত হলে আমরা পাখিদের সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সচেতন হব।

পাখি দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা

পৃথিবীব্যাপী পাখি দিবসকে সফলভাবে উদযাপন এর জন্য আপনি আপনার বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজন কে পাখি দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা জানাতে। এসব শুভেচ্ছা বার্তায় একদিকে যেমন আপনার বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজন পাখি দিবস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবে। অন্যদিকে তারা পাখি রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। তাই আমি কিছু পাখি দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা নিচে সংযুক্ত করলাম।

বিশ্ব অভিবাসী পাখি দিবসের শুভেচ্ছা! বাতাস পাখি দ্বারা পরিপূর্ণ – সুন্দর, কোমল, বুদ্ধিমান পাখি – যাদের কাছে জীবন একটি গান হতে পারে।

তারা কোন কারণে এত দূরত্ব ভ্রমণ করে এবং তাই আমাদের তাদের রক্ষা করতে হবে। বিশ্ব পরিযায়ী পাখি দিবস উপলক্ষে আন্তরিক শুভেচ্ছা।

পরিযায়ী পাখি এবং তাদের আবাসস্থলকে সুরক্ষিত রাখা আমাদের প্রত্যেকের কর্তব্য। সবাইকে বিশ্ব পরিযায়ী পাখি দিবসের শুভেচ্ছা।

পাখি দিবসের উক্তি

পৃথিবীর বিখ্যাত মনীষীগণ পাখিদের পৃথিবীর ভারসাম্য রক্ষায় ভূমিকা সম্পর্কে আগেই অবগত হয়েছেন। এজন্য তারা পাখি রক্ষায় বেশকিছু মহা মূল্যবান উক্তি দিয়ে গেছে। সেরকমই কিছু মহামূল্যবান পাখি নিয়ে উক্তি আমরা এই নিবন্ধের সংযুক্ত করেছি।

পাখি দিবসের ছবি

বিশ্ব পাখি দিবস
বিশ্ব পাখি দিবস

আমরা সকলে অবগত আছি শীতকালে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে আমাদের এই উপমহাদেশের দেশগুলোতে অতিথি পাখির আগমন ঘটে। এ সময় আমরা অতিথি পাখি দেখার জন্য বিভিন্ন স্পটে হুমরি খেয়ে পড়ি। অনেকেই অতিথি পাখিদের নিয়ে ফটোগ্রাফ করতে পছন্দ করে। এরকমই কিছু ফটোগ্রাফি নিবন্ধের এই অংশে আমি সংযুক্ত করলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *