বিশ্ব নারী দিবস; তারিখ, ইতিহাস, শুভেচ্ছা বার্তা এবং ছবি

বিশ্বের ১০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে নারী দিবস পালিত হয়ে আসছে।  কিন্তু,  এই নারী দিবস কি? কখন থেকে শুরু ? এটা কি কোন উৎসব?  নাকি বিক্ষোভ?  এসব প্রশ্নের উত্তর কি জানি?
শ্রমো আন্দোলন থেকে শুরু হয়ে নারী দিবস একসময় গিয়ে জাতিসংঘের স্বীকৃতি লাভ করে। এই আন্দোলনের বীজ রোপিত হয়েছিল ১৯০৮ সালে সে বছর ১৫ হাজার নারী কর্মঘন্টা কমানো, মজুরি বাড়ানো,  আর ভোট দেয়ার অধিকারের দাবিতে নিউইয়র্ক শহরের রাস্তায় বিক্ষোভ করেছিল।  এক বছর পর আমেরিকার সোস্যালিস্ট পার্টি প্রথম জাতীয় নারী দিবস ঘোষণা করেছিল।

নারি দিবসের ইতিহাস

এদিবস আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেয়ার কাজটি ক্লারা জেটকিন নামে এক নারী। ১৯১০ সালে কোপেনহেগেনে কর্মজীবী নারীদের এক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে তিনি এই দিনটিকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির প্রস্তাব দেন । ওই সম্মেলনে বিশ্বের ১৭ টি দেশের ১০০  জন নারী উপস্থিত ছিলেন।  যারা সবাই তার প্রস্তাবে সমর্থন দেন,  দিনটি আন্তর্জাতিক ভাবে প্রথম উদযাপিত হয় ১৯১১ সালে অস্ট্রেলিয়ার, ডেনমার্ক,  এবং সুইজারল্যান্ডে ।  দবসটির শতবার্ষিকী পালিত হয় 2011 সালে আর,  চলতি বছর অর্থাৎ 2021 সালে আমরা পালন করছি দিবসটির ১১০ তম বার্ষিকী ।  ১৯৭৫  সালে যখন জাতিসংঘ এই দিবসটি উদযাপনের সিদ্ধান্ত নেয়,  তখন থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভ করে ।

 নারী দিবস কবে?

 নারী দিবস উদযাপনের ক্লারা যে প্রস্তাব দিয়েছিলেন তাতে কোনো সুনির্দিষ্ট তারিখের উল্লেখ ছিল না।  ১৯১৭ সালের যুদ্ধকালীন সময়ে রাশিয়ার নারীরা রুটি এবং শান্তির দাবিতে বিক্ষোভ শুরুর পর এর তারিখ নির্ধারিত হয় । সেসময়, বিক্ষোভটি   চারদিন ধরে চলে এবং একপর্যায়ে সরকারের পতনের পর প্রাদেশিক সরকার নারীদের ভোটাধিকার দেয় । জুলিয়ান ক্যালেন্ডার অনুযায়ী তারিখটি ছিল ২৩ শে ফেব্রুয়ারি রোববার,  গ্রেগরিয়ান   ক্যালেন্ডার অনুযায়ী তারিখটি ছিল ৮ ই মার্চ । আর এ কারণে বর্তমানে ৮ ই মার্চ নারী দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

নারি দিবসের উদযাপন

রাশিয়ান সহ বিশ্বের অনেক দেশেই নারী দিবস সরকারি ছুটির দিন বলা হয় । রাশিয়ায় ৮ ই মার্চ কে ঘিরে তিন-চারদিন ফুল বিক্রি হয় ।  চীনে নারী দিবসের কর্মজীবী নারীদের অর্ধেক বেলা ছুটি দেয়ার নির্দেশ রয়েছে।  দেশটির স্টেট কাউন্সিল থেকে তবে অনেক নিয়োগকর্তা এটি মানেননা ,  ইতালিতে আন্তর্জাতিক নারী লা ফিস্তা দিল্লা দোয়ানন নামে। নারীদের শুভেচ্ছা জানানো হয় মিম নামে এক ধরনের ফুল দিয়ে ।  এই ঐতিহ্যের উৎপত্তি সম্পর্কে তেমন কিছু জানা না গেলেও ধারণা করা হয় যে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর রুমে এর প্রচলন শুরু হয় যুক্তরাষ্ট্রে মার্চ হচ্ছে নারী ইতিহাসের মাস প্রতি বছর আমেরিকান নারীদের অর্জন কে সম্মান জানিয়ে প্রেসিডেনশিয়াল ঘোষণা করা হয়।

নারি দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা

যা কিছু ভালো যা কিছু প্রথম যা কিছু মানব সভ্যতার অভিশাপ আশীর্বাদ সেসব ঘটনা ইতিহাসে স্থান পায় ইতিহাস আজীবন কথা বলে ইতিহাস মানুষকে ভাবায় তাড়িত করে প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে এমন ইয়ার ইতিহাসের গুরুত্ব বহন করে 8 মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপনের নেপথ্যে রয়েছে নারী শ্রমিকের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম ।

নারি দিবসের রং

বেগুনি,   সবুজ আর সাদা হচ্ছে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপনের রং ।  বেগুনি দেখা হয়  মর্যাদার প্রতীক হিসেবে,  সবুজ আশার প্রতীক আর সাদা মূলত শুদ্ধতার প্রতীক যদিও এটা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে।

পুরুষ দিবস আছে কি ? পুরুষ দিবস ১৯৭৫ হয়,  তবে এটি উদযাপন শুরু হয় ১৯৯০ এর দশক থেকে।  কিন্তু এখনো দিনটি জাতিসংঘের অনুমোদন পায়নি বিশেষ দিবসটি পালন করে এটি মূলত পুরুষের স্বাস্থ্য লৈঙ্গিক সম্পর্ক উন্নয়নে এগিয়ে নেয়া এবং ইতিবাচক পরিবর্তনে পুরুষ মডেলদের কার্যক্রমের ওপর গুরুত্ব দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *